হোম পরীক্ষার প্রস্তুতি সমাজসেবা অধিদপ্তরে ইউনিয়ন সমাজকর্মী পদের পরীক্ষার প্রস্তুতি ও মানবণ্টন

সমাজসেবা অধিদপ্তরে ইউনিয়ন সমাজকর্মী পদের পরীক্ষার প্রস্তুতি ও মানবণ্টন

103

ইউনিয়ন সমাজকর্মী পদের পরীক্ষার প্রস্তুতি: অবশেষে অনেক প্রতীক্ষার পর আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সমাজ সেবা অধিদপ্তর পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বিগত ১লা  জুলাই ২০১৮ সালে সমাজ সেবা অধিদপ্তর যারা সমাজ কর্মী(ইউনিয়ন) পদে আবেদন করেছিলেন শুধুমাত্র তারা আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর পরীক্ষা দিতে পারবেন। এক সপ্তাহ আগে থেকে প্রত্যেক সিমে এসএমএস যাবে। এসএমএস না আসলে কোন সমস্যা নাই। ওয়েবসাইট থেকে এডমিট কার্ডটি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। এখন শুধু মাত্র রোল নম্বর দেখতে পারবেন। আসন কোথায় পড়ছে তা পরীক্ষার আগেই জানতে পারবেন।

ইউনিয়ন সমাজকর্মী পদের পরীক্ষার প্রস্তুতি

একনজরে  সমাজসেবা অধিদপ্তরের ইউনিয়ন সমাজকর্মী পদের নিয়োগ পরীক্ষার সময়সূচী:

পদ সংখ্যাঃ ৪৬৩ টি 
পরীক্ষার তারিখঃ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

পরীক্ষার সময়: রোজ শুক্রবার বিকাল ৩.০০-৪.০০টা

পরীক্ষার সময়কালঃ ১ ঘন্টা 

পরীক্ষার ধরন: MCQ টাইপ প্রিলিমিনারী পরীক্ষা

পরীক্ষার স্থান: ঢাকা শহর, বিভাগীয় শহর এবং বিভাগীয় শহরের পার্শ্ববর্তী জেলায় ( প্রয়োজন বোধে) ।

মোট পরিক্ষার্থী: ৬,৬২,২৭০ জন

Admit Card Download Link: http://dss.teletalk.com.bd/admitcard/index.php

 ইউজার আইডি এবং পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে যা করবেন

যারা যারা আবেদন করেছিলেন সবাই নিজস্ব মোবাইল নাম্বারে মেসেজ পাবেন। আর যথাসময়ের মধ্যে মেসেজ না পেলে/নাম্বারটি বন্ধ হয়ে থাকলে/নাম্বারটি হারিয়ে গিয়ে থাকলে উপরোক্ত প্রবেশপত্র ডাউনলোড লিংক থেকে ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড রিকভার করার মাধ্যমে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে আবেদনে ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারটি অবশ্যই মনে থাকতে হবে। 

সমাজসেবা অধিদপ্তরের নিয়োগ পরীক্ষা পদ্ধতি পরামর্শ

পরীক্ষার মানবণ্টন

সমাজসেবা অধিদপ্তর ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নিয়োগ বিধি অনুসারে, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে প্রার্থী নির্বাচন করা হয়। ক্ষেত্র বিশেষে নেওয়া হয় ব্যবহারিক পরীক্ষায়ও। অধিদপ্তরের প্রশাসন ও অর্থ শাখা সূত্রে জানা যায়,

তৃতীয় শ্রেণির পদগুলোতে মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষা নেওয়া হয়ে থাকে। ৭০ নম্বরের লিখিত এবং ৩০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হতে পারে। চতুর্থ শ্রেণির নিয়োগ পরীক্ষায় মোট ৫০ নম্বরের মধ্যে ৪০ নম্বরের লিখিত এবং ১০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হতে পারে।

এমসিকিউ পদ্ধতিতে লিখিত পরীক্ষা হয়ে থাকে। পদ অনুসারে করা হয় প্রশ্নপত্র। লিখিত পরীক্ষায় বাংলা, ইংরেজি, গণিত ও সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়ে থাকে। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের ডাকা হবে মৌখিক পরীক্ষায়।

পরীক্ষার প্রস্তুতি

সমাজসেবা অধিদপ্তরে কর্মরতদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তৃতীয় শ্রেণির পদগুলোতে বোর্ড নির্ধারিত এসএসসি ও এইচএসসির বাংলা, ইংরেজি ও গণিত বই থেকে বেশি প্রশ্ন করা হয়। অষ্টম শ্রেণির পাটিগণিত ও বীজগণিত থেকেও প্রশ্ন থাকে। পাঠ্য বইগুলো বেশি বেশি চর্চা করলে লিখিত পরীক্ষায় ভালো করা যাবে।

ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা উপজেলার সমাজকর্মী পদে কর্মরত মো. ফারুকুজ্জামান জানান, সমাজকর্মী পদে অষ্টম-দশম শ্রেণির বাংলা, ইংরেজি ও গণিত বই থেকে বেশি প্রশ্ন করা হয়। 

বাংলা

বাংলা ব্যাকরণে সন্ধিবিচ্ছেদ, কারক, বিভক্তি, সমাস, ণত্ববিধান, ষত্ববিধান, প্রবাদ প্রবচন, এককথায় প্রকাশ, বাগধারা থেকে প্রশ্ন আসে। এ ছাড়া সাহিত্য অংশ থেকেও প্রশ্ন করা হয়।

ইংরেজি

ইংরেজি অংশ থেকে Translation, Tense, Preposition, Parts of speech, Verb, Number, Gender, Voice Change, Synonym, Antonym, Transformation of Sentence, Appropriate Word, Idioms and Phrases থেকে প্রশ্ন আসে।

গণিত

গণিতে সরল, সুদকষা, শতকরা, ঐকিক নিয়ম, লসাগু, গসাগু অধ্যায় থেকে প্রশ্ন আসে।

সাধারণ জ্ঞান

সাধারণ জ্ঞানে প্রশ্ন করা হয় জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ঘটনাবলি থেকে। প্রশ্ন থাকে সাম্প্রতিক ঘটনাপ্রবাহ থেকেও।

মৌখিক পরীক্ষা

মৌখিক পরীক্ষায় প্রার্থীর নিজের সম্পর্কে, পঠিত বিষয় ও নিজ জেলা সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়। প্রশ্ন করা হতে পারে সাধারণ জ্ঞান থেকেও বিষয়ভিত্তক কিছু প্রশ্ন।

ভালো লাগলে শেয়ার করুন এবং তাছাড়া বিভিন্ন চাকরির খবর জানতে এখনি ভিজিট করুন: জিজ্ঞাসা.কম-এ।